আর্দশিক গুনাবলীর মাধ্যমে ছাত্রলীগের সেই সোনালি দিন নিশ্চিত করতে হবে

প্রকাশ: ২৪ আগস্ট, ২০১৯ ১০:৫৮ : পূর্বাহ্ন

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া
শোকের মাসে জাতীয় শোক দিবস ও ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে গতকাল শুক্রবার বিকালে চকরিয়া মহিলা কলেজ মিলনায়তনে শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ মারুফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শোকসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম।
চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আকিত হোসেনের সঞ্চালনায় শোকসভায় প্রধান বক্তা ছিলেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও চকরিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান রেজাউল করিম। বিশেষ বক্তা ছিলেন কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোরশেদ হোসেন তানিম।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, চকরিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও মাতামুহুরী উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এসএম জাহাংগীর আলম বুলবুল, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য সাবেক ছাত্রনেতা আমিনুর রশিদ দুলাল, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক জামাল উদ্দিন জয়নাল, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম লিটু, সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরী, সহ-সভাপতি মো.ওয়ালিদ মিল্টন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের ধর্ম সম্পাদক তাজ উদ্দিন প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি অধ্যাপক মোসলেহ উদ্দিন মানিক, যুগ্ম সম্পাদক ফেরদৌস ওয়াহিদ, সেলিম উদ্দিন লিটন, সাংগঠনিক সম্পাদক মুজিবুর রহমান লিটন, আওয়ামীলীগ নেতা মিফতাব উদ্দিন চৌধুরী, চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কাউছার উদ্দিন কছির, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি শওকত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক বাবলা দেবনাথ, চকরিয়া উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন, চকরিয়া পৌরসভা যুবলীগের সভাপতি হাসানগীর হোছাইন, সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম সোহেল, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আলহাজ হায়দার আলী, সাবেক সভাপতি শেফায়েতুল কবির চৌধুরী বাপ্পী, সাবেক সম্পাদক সাজিদ হোসেন শাকিব, চকরিয়া পৌরসভা শ্রমিকলীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন ধুলু, মাতামুহুরী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হুমায়ুন কবির চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মিজবাহ উদ্দিন বেলালা, চকরিয়া পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা পারভেজ প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান কমিটির সিনিয়র নেতৃবৃন্দ সকল ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি সম্পাদক ছাড়াও ছাত্রলীগের অসংখ্য নেতাকর্মী।
শোকসভায় প্রধান অতিথি এমপি জাফর আলম বলেছেন, ছাত্রলীগ একটি আর্দশের নাম। এই সংগঠনটি বাংলাদেশের স্বাধীনতার ধারক বাহক। ছাত্রলীগের ইতিহাসের সঙ্গে বাংলাদেশের অস্বিস্ত বিরাজমান। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এই ছাত্রলীগের প্রবক্তা। তাঁর দৃঢ নেতৃত্বে ছাত্রলীগের দামাল ছেলেরা দেশ-মাতৃকার টানে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশনেন। দেশকে পরাধীণতার শৃঙ্খল থেকে মুক্ত করে। জাতির প্রতিটি ক্ষান্তিলগ্নে ছাত্রলীগ অগ্রণী ভুমিকা রেখেছে।
তিনি বলেন, ছাত্রলীগের সোনালী অতীত ধরে রাখতে আজকের নতুন প্রজন্মের সকল ছাত্রলীগ নেতাকর্মীকে জাতির পিতার আর্দশ ধারণ করে আওয়ামীলীগ সভাপতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অবিচল থেকে যোগ্যতার গুনাবলীতে এগিয়ে যেতে হবে। সব ধরণের অন্যায় কাজ থেকে ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে বিরত থাকতে হবে। আমি আশা করি আগামী দিনে চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলার প্রতিটি নেতাকর্মী সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ ছাত্রলীগের সোনালি অতীত বির্নিমান করবে। কেউ নৈতিকভাবে বিচ্যুতি হলে বা সংগঠনের দুর্নাম রটালে ছাত্রলীগের গৌরব ভুলুন্ডিত হবে। আশাকরি সবাই এব্যাপারে সতেষ্ঠ থাকবে।