উখিয়ায় রোহিঙ্গাদের জন্য বানানো’ বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট, ২০১৯ ১১:০৫ : অপরাহ্ন

উখিয়া সংবাদদাতা।

উখিয়া-টেকনাফের বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এনজিও সংস্থার পক্ষ থেকে দেশীয় তৈরি অস্ত্র।এসব অস্ত্র রোহিঙ্গারা যেকোনো সময়ে স্হানীয়দের উপর ঝাপিয়ে পড়তে পারে।

স্হানীয়া বলেছেন এনজিওদের লাগাম টেনে ধরার এখানে সময় এসেছে।

সোমবার দুপুর বারোটার সময় উখিয়ার সহকারী কমিশনার ভূমি মোহাম্মদ ফখরুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা কোটবাজার ভালুকিয়ার সড়কের একটি কামারের দোকান থেকে বিপুল পরিমান দেশীয় তৈরি অস্ত্র উদ্ধার করেছে।

এসময় কাউকে আটক করতে পারেনি।রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিতরণের জন্য বেসরকারী এনজিও সংস্হা মুক্তি এসব অস্ত্র তৈরী করতে দিয়েছিল বলে জানিয়েছেন কামার অধীর দাশ।এর আগে এসব অস্ত্রের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে স্হানীয়দের মধ্যে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠে।

কামার অধীর দাশ বলেন এনজিও সংস্হা মুক্তির জন্য প্রায় একমাস আগে দুই হাজার ছয়শত পিস দেশীয় অস্ত্র তৈরির অর্ডার দেন জনৈক সাইফুল।

অর্ডার দেয়ার সময় ত্রিশ হাজার টাকা অগ্রীম টাকা দেন।

উখিয়া সহকারী কমিশনার ভূমি ফখরুল ইসলাম বলেন খবব পেয়ে অস্ত্র গুলো উদ্ধার করা হয়েছে।এনজিও সংস্হা মুক্তির জন্য জন্য ভালুকিয়ার জনৈক সাইফুল এসব অস্ত্র তৈরীর অর্ডার দিয়েছিল।

তিনি আরো বলেন,চারশত পিস ছোরা ও ভেলচা উদ্ধার করেন।ক্যাম্পে বিতরনের জন্য দেশীয় অস্ত্র তৈরীর ঘটনায় চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্হানীয়রা।

উখিয়া থানার ওসি (তদন্ত) নূরুল ইসলাম জানান, চাপাতি উদ্ধারের ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।