টেকনাফে ৩৫ হাজার ইয়াবা উদ্ধার

প্রকাশ: ৮ মার্চ, ২০২১ ৭:০৬ : অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ কোস্টগার্ড বাহিনীর সদস্যরা টেকনাফের জালিয়াপাড়া সংলগ্ন এলাকায় একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ৩৫ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে। তবে মাদক চোরাকারবারীরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে।
৭ মার্চ বাংলাদেশ কোস্টগার্ড বাহিনীর চট্রগ্রাম পূর্ব জোনের মিডিয়া কর্মকর্তা লেঃ কমান্ডার বিএন আমিরুল হক জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, টেকনাফ জালিয়াপাড়া সংলগ্ন এলাকা দিয়ে নৌ—পথে মায়ানমার হতে বাংলাদেশে ইয়াবা পাচার হবে। প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ স্টেশন কমান্ডার লেঃ এম সালেহ আকরাম(এক্স) বিএনভিআর এর নেতৃত্বে ৬ মার্চ দিবাগত রাত সোয়া ১১টায় উক্ত অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযান চলাকালীন সময় জালিয়াপাড়া ঘাট সংলগ্ন এলাকায় ব্যাগ হাতে একজন ব্যক্তিকে দেখতে পাওয়া যায়। লোকটির গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে তাকে থামার সংকেত দেওয়া হয়। পরবর্তীতে কোস্টগার্ড সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে সে হলুদ রংয়ের একটি শপিং ব্যাগ ফেলে নাফনদী সংলগ্ন প্যারাবনের মধ্যে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে উক্ত শপিং ব্যাগ তল্লাশী করে ৩৫ হাজার পিস ইয়াবা পাওয়া যায়। জব্দকৃত ইয়াবা পরবর্তী আইনানুগব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড এর আওতাভুক্ত এলাকা সমূহে আইন শৃঙ্খলানিয়ন্ত্রণ, জননিরাপত্তার পাশাপাশি বনদস্যুতা, ডাকাতি দমন ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ রোধে কোস্ট গার্ডের জিরোটলারেন্স নীতিঅবলম্বন করে নিয়মিত অভিযান অব্যাহতআছে এবংভবিষ্যতেও থাকবে