কাপড় পরা নিষেধ যে গ্রামে

প্রকাশ: ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১২:৪৫ : অপরাহ্ন

লাইফ স্টাইল।। সভ্যতার এই যুগেও আদিম মানুষদের মতো জামাকাপড় না পরে একদল মানুষ ঘুরে বেড়ায়,এটা শুনলে অনেকেই অবিশ্বাস করবেন হয়তো। কিন্তু ব্রিটেনে এমন একটি গ্রাম রয়েছে, যেখানে নিয়ম-রীতি একেবারেই আলাদা রকম। ওই গ্রামের মানুষ সচ্ছল, এমনকি বিজ্ঞান-প্রযুক্তির সব উপকরণও ব্যবহার করেন তারা; কিন্তু জামাকাপড় পরেন না কেউই।

ব্রিটেনের হার্টফোর্ডশায়ারে অবস্থিত এই গ্রামটির নাম স্পিলপ্লাজ। এই গ্রামের ১২ একর জমিতে বর্তমানে ৫৫টি বাড়ি রয়েছে। গ্রামে বিদ্যুৎ আছে। এখানকার মানুষজন সানগ্লাস, সোনার চেইন, আংটি, পার্ক, বিনোদনকেন্দ্র সব কিছু ব্যবহারও করে। তবে এখানে লজ্জা নামের জিনিসটি নেই। ব্রিটেনের সবচেয়ে পুরনো নগ্নতাবাদী অঞ্চল বলা হয় এই স্থানকে, যেখানে এই নিয়ম না মানলে জমি দেওয়া হয় না।

জানা যায়, ১৯২৯ সালে লন্ডন ছেড়ে চার্লস ম্যাকস্কি ও তার স্ত্রী ডোরথি এই গ্রামে তাঁবু গেড়ে থাকা শুরু করেন। তারাই এর নাম দিয়েছিলেন স্পিলপ্লাজ, যার মানে খেলার জায়গা। ধীরে ধীরে তাদের পরিচিতদের অনেকেই এখানে বসতি গড়ে। গ্রামের লোকজনের একেবারেই কোনো জামাকাপড় নেই তা নয়; তবে সেগুলো তারা শুধু গ্রামের বাইরে গেলেই পরেন।