কাশ্মীরে উত্তেজনা দমনে ৮ হাজার অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন

প্রকাশ: ৫ আগস্ট, ২০১৯ ৪:৫০ : অপরাহ্ন

ভারতের কাশ্মীর রাজ্যের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলুপ্ত করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার। সেইসঙ্গে স্বায়ত্বশাসিত এই রাজ্যটি ভেঙ্গে ‘জম্মু-কাশ্মীর’ এবং ‘লাদাখ’ নামে আলাদা দুটি ‘ইউনিয়ন টেরিটোরি’ বা ‘কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল’ গঠনের প্রস্তাবও দেয়া হয়েছে।

সোমবার (০৫ আগস্ট) সকালে ভারতীয় পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় ঘোষণা দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। আর ঘোষণার পর বিক্ষোভ দমনে আরও ৮ হাজার আধাসামরিক সেনা পাঠানো হচ্ছে।
ভারতীয় টেলিভিশন এনডিটিভির প্রতিবেদনে সূত্রের বরাত দিয়ে জানানো হয়েছে, বিমানবাহিনীর সামরিক পরিবহন বিমানে করে আজই (সোমবার) জম্মু-কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগরে ৮ হাজার সেনা পাঠানো হবে। গত কয়েক সপ্তাহে সেখানে অতিরিক্ত ৩৫ হাজার সেনা মোতায়েন করা হলো।
কাশ্মীর ইস্যুতে গেল কয়েক দিন ধরে চলা চরম উত্তেজনার মধ্যেই সোমবার স্থানীয় সময় সকালে ভারতীয় পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভার অধিবেশন শুরু হয়। এরপরই সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলুপ্তির ঘোষণা দেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। পড়ে শোনান রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের এ সংক্রান্ত একটি আদেশ। এসময়, তুমুল প্রতিবাদে ফেটে পড়েন বিরোধীরা। ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলুপ্ত হওয়ার কারণে নিজস্ব সংবিধান, সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতাসহ জম্মু কাশ্মীরের জনগণকে দেয়া বিশেষ মর্যাদা বাতিল হলো।
এর আগে, চরম উত্তেজনার মধ্যেই জম্মু কাশ্মীরে জারি করা হয় ১৪৪ ধারা।