জেলায় ৪ লাখ ৪৩ হাজার ৬৭২ শিশুকে খাওয়ানো হবে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস টিকা

প্রকাশ: ২০ জুন, ২০১৯ ১১:৪৫ : অপরাহ্ন

কক্সবাজার প্রতিনিধি।সারা বাংলাদেশের ন্যায় কক্সবাজার জেলাও শুরু হতে যাচ্ছে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন (১ম রাউন্ড)।

আগামী ২২ জুন শনিবার সকাল ৮টা থেকে শুরু করে বিকাল ৫টা পর্যন্ত কক্সবাজার সদরসহ ৮টি উপজেলায় ৪ লাখ ৪৩ হাজার ৬৭২ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস টিকা খাওয়ানোর মাধ্যমে এই ক্যাম্পেইন পালিত হবে।

শিশুদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং মৃত্যুর ঝুঁকি কমাতেই মূলত এই ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হবে।

জেলাব্যাপী ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বৃহস্পতিবার (২০ জুন ফেব্রুয়ারী) বিকাল তিনটায় কক্সবাজার ইপিআই কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক্স এবং অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম সবুজের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডাঃ মহিউদ্দিন মোহাম্মদ আলমগীর।

সভাপতির বক্তব্যে ডা.এম এম আলমগীর জানান, ৬ মাস থেকে শুরু করে ৫৯ মাস পর্যন্ত শিশুদেরকে ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ানো হবে। ৮ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা, বাস স্ট্যান্ড ও সহ সর্বমোট ১৯৫১টি কেন্দ্রের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে ৫ হাজার ৮৫৩ জন স্বাস্থ্যকর্মী ও স্বেচ্ছাসেবী কর্মীদের মাধ্যমে শিশুদের ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

এছাড়া ক্যাম্পেইন চলাকালিন সময়ে ২১৯ জন সুপারভাইজার সার্বক্ষণিক এর তদারকিতে থাকবেন বলেও জানান তিনি।

তিনি আরও জানান,জেলার ৭২টি ইউনিয়নের ২১৬টি ওয়ার্ডের ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ৫৫ হাজার ৮৪ শিশুদের ১টি করে নীল রঙের এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী ৩ লাখ ৮৮ হাজার ৫৮৮ শিশুকে লাল রঙের ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

এছাড়া তিনি আরো বলেন, এ ক্যাম্পেইন শুধু শিশুদেরকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়, এর মাধ্যমে অভিভাবকরা যাতে শিশুর দেহে ভিটামিন ‘এ’ এর চাহিদা, প্রয়োজনীয়তা এবং স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন হতে পারে সেই জন্যই এ ক্যাম্পেইন।

আর ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো মাধ্যমে শিশু মৃত্যুর হার অনেকাংশে কমানো সম্ভব সেজন্য নির্দিষ্ট বয়সের শিশুদেরকে যথাসময়ে ক্যাপসুল খাওয়ানোর জন্য আহবান জানান।তবে অসুস্থ অবস্থায় শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো থেকে বিরত থাকতে বলেন তিনি।

ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন আরো জানান এবারেরর ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনে আমরা ১০০% সফল হবে। গতবার যা ছিল ৯৭% ও ৯৮%।

সংবাদ সম্মেলনে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন এর পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপন করেন মেডিকেল অফিসার ডা: এসএম জামশেদুল হক।