নৌ-বাণিজ্য অধিদপ্তর ও কক্সবাজার জেলা ফিশিং বোট মালিক সমিতির সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশ: ৩ আগস্ট, ২০১৯ ৯:১০ : অপরাহ্ন

নৌবাণিজ্য অধিদপ্তর চট্টগ্রাম এর ব্যবস্থাপনায় অনিবন্ধিত ফিশিং বোটের মালিকদের উদ্বুদ্ধকরণ সভা চীফ সার্ভেয়ার নৌ-প্রকৌশলী রফিকুল আলম এর সভাপতিত্বে ও জেলা ফিশিং বোট মালিক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক আহমদ এর সঞ্চালনায় অদ্য ৩ আগস্ট ’১৯ হোটেল রেডিয়্যান্ট সী ওয়াল্ডে অনুষ্ঠিত হয়।এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা ফিশিং বোট মালিক সমিতির সভাপতি,পৌর মেয়র ও কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জননেতা মুজিবুর রহমান।বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন নৌবাণিজ্য অধিদপ্তরের প্রিন্সিপাল অফিসার বাংলাদেশ মেরিন একাডেমির কমান্ডেন্ট নৌপ্রকৌশলী ডঃ সাজিদ হোসাইন।এতে বক্তব্য রাখেন জেলা বোট মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসাইন ও সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক আহমদ।ভিন্ন ভিন্ন ডিপার্টমেন্টে রেজিষ্ট্রেশনে জটিলতা নিরসন পূর্বক একই দপ্তরের মাধ্যমে রেজিষ্ট্রেশন প্রথা চালু করে সহজতর করার উপর গুরুত্ব আরোপ করে প্রধান অতিথি প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন এবং নতুনভাবে ফিশিং বোটের উপর আরোপিত ভ্যাট প্রত্যাহারের করে পূর্বের নিয়ম বহাল রাখার দাবী জানান।তিনি বলেন এই ব্যবসা সম্পূর্ণ ঝুকিপূর্ণ এর কোন নিশ্চয়তা নেই। বছরে কম হলে ও ১০/১৫ টি বোট সাগরে তলিয়ে যায়। জেলায় প্রায় ৪ হাজার ফিশিং বোট রয়েছে এবং সব বোটের রেজিষ্ট্রেশন বলবৎ আছে এবং বার্ষিক নবায়ন কাজ করা শুরু হয়েছে ক্রমান্বয়ে সবগুলো নবায়ন করা হবে।জেলায় ৫০ হাজার ফিশিং বোট অনিবন্ধিত রয়েছে এমন কথার উত্তরে মেয়র বলেন এটি সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট অসত্য।তিনি এর তীব্র প্রতিবাদ করেন। চট্টগ্রাম অধিদপ্তরের প্রধান প্রিন্সিপাল অফিসার রেজিষ্ট্রেশন ও নবায়নে সহযোগিতা ও সহজলভ্য করার আশ্বাস দেন এবং সরকারের নিয়ম নীতি মেনে চলে সাগরে ফিশিং কাজ চালু রাখার উপর বিশদ গুরুত্ব আরোপ করেন। সভায় দপ্তরের সাহেদ সাহেব মিজান সাহেব ও শতাধিক ফিশিং বোটের মালিক উপস্থিত ছিলেন।সভা স্থলে ফিশিং বোট মালিকদের ব্যাপক সাড়া পাওয়া যায় এবং তাৎক্ষণিক ফিশিং বোটের বেশ কয়েকটি রেজিষ্ট্রেশন কাজ সম্পাদন করা হয়।