পেকুয়ায় স্কুল ছাত্রীকে ইভটিজিং-আটক-১

প্রকাশ: ৩ জুলাই, ২০১৯ ১০:১৮ : পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক,পেকুয়া:
পেকুয়ায় ইভটিজিং করা হয়েছে স্কুল ছাত্রীকে। এ সময় এক যুবককে আটক করে পেকুয়া থানা পুলিশ। ওই ঘটনায় পেকুয়া থানায় মামলা রেকর্ড হয়েছে। স্কুল ছাত্রীর মা বাদী হয়ে পেকুয়া থানায় ১ জুলাই রাতে মামলা রুজু করে। মামলায় আটককৃত যুবকসহ তিনজনকে আসামী করে। ৩০ জুন (রবিবার) বিকেলে উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাইম্যাখালী গ্রামে ইভটিজিংয়ের এ ঘটনা ঘটে। আটককৃত যুবকের নাম নেজাম উদ্দিন (২০)। তিনি সদর ইউনিয়নের ভোলাইয়াঘোনা গ্রামের মৃত নুরুল আবছারের ছেলে। মামলায় আসামী অপর দুই যুবকের নাম আনিছ (২০) ও জহির (২২)। এদের বাড়িও ভোলাইয়াঘোনা গ্রামে। স্থানীয় সুত্র জানায়, ওই দিন বিকেলে পেকুয়া জিএমসি ইনষ্টিটিউশনের দশম শ্রেনীর ছাত্রী দিনতাজ বাপ্পী রিয়া স্কুল থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে নেজাম উদ্দিনসহ ওই ৩ যুবক স্কুল ছাত্রী রিয়াকে উত্যক্ত করছিলেন। তারা ওই ছাত্রীকে উত্তেজক বাক্য ছুড়ে। ছাত্রীর মা একই এলাকার রিয়াজ উদ্দিনের স্ত্রী ইয়াসমিন সোলতানা পেকুয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়। পুলিশ ১ জুলাই সোমবার সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে পেকুয়া কবির আহমদ চৌধুরী বাজার থেকে যুবক নেজাম উদ্দিনকে আটক করে। ওই দিন রাতে নেজাম উদ্দিন সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে। পেকুয়া থানার ওসি জাকির হোসেন ভূইয়া জানায়, ইভটিজিংয়ের দায়ে ১ জনকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ। অপর আসামীদেরও গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত আছে।