মহেশখাতে ২টি বন্দুক সহ কার্তুজ উদ্ধার

প্রকাশ: ২০ আগস্ট, ২০১৯ ৩:৫৪ : অপরাহ্ন

নিজস্ব সংবাদদাতা।মহেশখালী থানার পুলিশ কালামারছড়া ইউনিয়নের পূর্ব আধারঘোনা পাহাড়ী এলাকায় ডাকাতের আস্তানায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এক অভিযান অভিযান পরিচালনা করে দেশে তৈরী ২টি এক নলা লম্বা বন্দুক, ৪ রাউন্ড তাজা কার্তুজ, ১টি গুলি রাখার বেল্ট, ১টি টেট্যা উদ্ধার করেছে।

এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আব্দুল করিম বদাইয়া ডাকাত ও অন্যান্য ডাকাতরা অবৈধ অস্ত্রসহ গভীর পাহাড়ের দিকে পালিয়ে গেলেও ডাকাত মোঃ আলী, খালেদ বাপ্পি,  সুমন, ও  মোঃ হোসেন  কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত ডাকাতদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

গ্রেপ্রতারকৃতদের দেওয়া তথ্য মতে ডাকাতদের আস্তানা থেকে দেশে তৈরী ২টি এক নলা লম্বা বন্দুক, ৪ রাউন্ড তাজা কার্তুজ, ১টি গুলি রাখার ভেল্ট, ১টি টেট্যা উদ্ধার করা হয়।

সোমবার দুপুর ১টার দিকে মহেশখালী থানার পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত(ওসি) বাবুল আজাদ এর নেতৃত্বে কালামারছড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই নুরুল হক, এএসআই জাহাঙ্গীর, থানার এএসআই জহিরসহ সঙ্গীয় ফোর্স অভিযানে অংশ নেয়।

এব্যাপারে মহেশখালী থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) তদন্ত বাবুল আজাদ জানান, দীর্ঘদিন ধরে কালামারছড়াস্থ পূর্ব আধারঘোনা পাহাড়ী এলাকাসহ কালামারছড়া ইউনিয়নেবিভিন্ন ধরনের অপরাধ সংগঠিত করে আসছে গ্রেপ্তারকৃত ডাকাত দলের সদস্যেরা।

তাদের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলাসহ বিভিন্ন অপরাদের অভিযোগ রয়েছে।

অস্ত্র ও গুলি উদ্ধারের ঘটনায় সংশ্লিষ্ট আইনে গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা রুজু করা হবে এবং আদালতের মাধ্যমে গ্রেফতারকৃত আসামীদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে বলে জানান তিনি।