রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে জরুরি বৈঠক

প্রকাশ: ১৮ আগস্ট, ২০১৯ ১২:৩০ : অপরাহ্ন

বিশেষ সংবাদদাতা।অবশেষে আবারো রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের প্রস্তুতি নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসেছেন প্রত্যাবাসন ট্রাস্কফোর্সের কর্মকর্তারা।

 

রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের কার্যালয়ে এ জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মো. আবুল কালামের নেতৃত্বে বৈঠকে উপস্থিত আছেন, চট্টগ্রাম বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার নুরুল আলম নেজামী, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন, কক্সবাজার পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, অতিরিক্ত আরআরসি শামসুদ্দৌজা নয়ন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এসএম সরওয়াল কামালসহ সেনাবাহিনী ও ইউএনএইচসিআরের প্রতিনিধিরা।

বৈঠকে আগামী ২২ আগস্ট মিয়ানমার সরকারের ঘোষণা দেয় প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া শুরু করার। যেভাবে প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া করা যায় তার প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা করা হবে। বৈঠকে যাওয়ার সময় কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া বাস্তবায়নের লক্ষ্য যা যা প্রয়োজন সে বিষয়ে আলোচনা করবো। সরকারের নির্দেশ যেভাবে রয়েছে আজকের বৈঠকে গুরুত্ব পাবে।

উল্লেখ্য যে, এর আগে গত বছরের ১৫ নভেম্বর নির্ধারিত সময়ে রোহিঙ্গাদের প্রতিবাদে প্রত্যাবাসন শুরু করতে পারেনি। সেসময় উখিয়ার ঘুমধুম ও টেকনাফের টেকনাফ নাফ নদী তীরে কেরুণতলী (নয়াপাড়া) প্রত্যাবাসন ঘাট নির্মাণ হয়েছিল। এর মধ্যে টেকনাফের প্রত্যাবাসন ঘাটে প্যারাবনের ভেতর দিয়ে লম্বা কাঠের জেটি, ৩৩ আধা সেমি-টিনের থাকার ঘর, চারটি শৌচাগার রয়েছে। সেখানে ১৬ আনসার ব্যাটালিয়ন ক্যাম্পের সদস্যরাও দায়িত্ব পালন করছেন।