সৈকতের লাবনী পয়েন্ট মসজিদ রোডের অবৈধ স্থাপনায় ম্যাজিস্ট্রেটের অভিযান

প্রকাশ: ৬ আগস্ট, ২০১৯ ১১:২৮ : অপরাহ্ন

বার্তা পরিবেশক :
পর্যটন নগরি কক্সবাজারে দখলদারদের দৌরাত্ম্য দিন-দিন বেড়ে চলেছে। জমিজমার মুল্য বৃদ্ধি ও চাহিদাকে পুঁজি করে দখলদাররা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। ৬ অাগস্ট সকালে জেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনার (পর্যটন সেল) মাখন চন্দ্র সুত্রধর সৈকতে অভিযান চালিয়ে অবৈধ স্হাপনা নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিয়েছে।
জানা গেছে, সৈকতের লাবনী পয়েন্টের বিজিবি রেস্তোরাঁ ও মসজিদ রোডে কয়েক দিন ধরে একটি দখলদার চক্র ইট ও বালি স্তুপ করেন। ওই চক্রটি গতকাল সকালে অবৈধ ভাবে সড়ক পথ দখল করে দোকান নির্মাণ করাকালে বীচ কর্মীরা বাঁধা দিলে তারা বাঁধা না মেনে স্থাপনা নির্মাণ শুরু করেন। পরে খবর পেয়ে সহকারি কমিশনার মাখন চন্দ্র সুত্রধর ঘটনাস্থলে এসে অভিযান চালিয়ে অবৈধ ভাবে নির্মিত স্থাপনা কাজ বন্ধ করে সর্তকস্বরুক লাল পতাকা উঠিয়ে দিয়েছেন।
অভিযোগ পাওয়া গেছে, অাওয়ামী লীগের একজন নেতার নাম ব্যবহার করে কলাতলির নজির অাহমদের পুত্র জয়নাল ও জেল গেইট এলাকার বাদশা মিয়ার পুত্র সবুজ সড়ক পথ দখল করে সম্পুর্ণ অবৈধ ভাবে স্থাপনা নির্মাণ করছিলেন।
সৈকতের সাধারণ ব্যবসায়িরা জানান, সৈকতের গুরুত্বপূর্ণ চলাচলের পথ দখল করে কিসের স্থাপনা কাজ! কােন সাহসে এরা সরকারি রাস্তা দখল করে এটি করছিলেন, কারা তাদের ইন্দন যুগিয়েছেন তা বের করে কঠোর শাস্তি দিতে হবে।