পেকুয়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমকে অপসারণ, পদ শূন্য ঘোষণা

প্রকাশ: ৭ আগস্ট, ২০১৯ ১১:৩২ : অপরাহ্ন

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া

 

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের পদ থেকে নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমকে অপসারণপূর্বক পদটি শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল বুধবার এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ। প্রজ্ঞাপনে স্বাক্ষর করেছেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম। এই আদেশ জনস্বার্থে জারি করা হলো এবং অবিলম্বে কার্যকর হবে।
কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতে একটি অস্ত্র মামলায় ২১ বছরের সাজাপ্রাপ্ত হওয়ায় পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচিত পেকুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমকে অপসারণপূর্বক পদটি শূন্য ঘোষণা করেছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।
এতে নিয়মানুযায়ী আগামী তিনমাসের মধ্যে পেকুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে পুনঃ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। স্থানীয় সরকার বিভাগের জারিকৃত প্রজ্ঞাপন প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মাহবুব-উল করিম। তিনি বলেন, ‘উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের পদ থেকে যেহেতু অপসারণ করা হয়েছে সেহেতু বিধি অনুযায়ী আগামী তিনমাসের মধ্যে পেকুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে পুনরায় নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।’
জারিকৃত প্রজ্ঞাপন সূত্রে জানা গেছে, অস্ত্র আইন ১৮৭৮ এর ১৯(এ) এবং ১৯(এফ) ধারার অপরাধে কক্সবাজার ১ নম্বর স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের মামলা নং-১৫৮/২০১৭ (জিআর নং-১২৩/২০১৭, পেকুয়া থানার মামলা নং-০৪, তারিখ-১৩/০৮/২০১৭ হতে উদ্ভুত) এ গত ০৯/০৫/২০১৯ ইং তারিখের দুই ধারার অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হয়ে একটিতে ১৪ বছর এবং অপরটিতে ৭ বছরসহ মোট ২১ বছর সশ্রম কারাদ- হয় পেকুয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমের।
যেহেতু তিনি এই আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্ট বিভাগে ফৌজদারী আপীল মামলা নং ৫৪৪৬/২০১৯ দায়ের করেন এবং উক্ত আপীল মামলায় মাননীয় হাইকোর্ট বিভাগ তার সাজার আদেশ স্থগিত না করে ৬ মাসের জামিন মঞ্জুর করেন। এবং যেহেতু সুপ্রীম কোর্টের সিএমপি নং-৬৩৪/২০১৯ মামলায় বিগত ২৩/০৫/২০১৯ তারিখের আদেশে উক্ত জামিন আদেশ স্থগিত করা হয়। আদালতের এসব আদেশের পর জাহাঙ্গীর আলম উপজেলা পরিষদ (সংশোধন) আইন ২০১১ এর ধারা ৮(২) (ঘ) অনুযায়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন।
প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, একই আইনের ১৩(১) (খ) বিধানমতে তিনি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদ হতে অপসারণযোগ্য এবং এই পদে বহাল থেকে উপজেলা পরিষদের কার্যক্রম পরিচালনা করা রাষ্ট্র বা পরিষদের স্বার্থের হানিকর। সেহেতু সরকার জনস্বার্থে তাকে তার স্বীয় পদ হতে অপসারণ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন। এমতাবস্থায় উপজেলা পরিষদ আইন ১৯৯৮ এর ১৩ ধারা অনুসারে পেকুয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমকে অপসারণপূর্বক চেয়ারম্যান পদটি শূন্য ঘোষণা করা হলো।
স্থানীয় সরকার মন্ত্রাণালয় থেকে জনস্বার্থে জারি করা প্রজ্ঞাপনটির আলোকে পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রী পরিষদ সচিব, নির্বাচন কমিশন সচিব, বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্ট ১৫টি দপ্তরে অনুলিপি প্রেরণ করা হয়েছে।#