মহেশখালী মহিলা ভাইস চেয়ারম‍্যানের মারধরে গুরুতর আহত অসহায় দুই বোন

প্রকাশ: ১৬ মে, ২০২০ ৪:৩৬ : অপরাহ্ন

মহেশখালী থেকে সংবাদদাতা।

মহেশখালী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মিনুয়ার আরা দুই অসহায় মহিলাকে বাড়িতে এনে বিচারের নামে মারধর করে গুরুতর আহত করেছে। ১৪ মে সকাল পাঁচটার দিকে কালারমারছড়া পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই রিপন বড়ুয়ার সহযোগিতায় কালারমারছড়া ফকিরা ঘোনা গ্রামের মৃত শাহ আলমের কন‍্যা জোবেদা বেগম ও আছমা খাতুন নামের দুই বোনকে মারধর করলে তারা গুরুতর আহত হয়। পার্শ্ববর্তি লোকজন তাকে উদ্ধার করে মহেশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা করতে নিয়ে যায়। জোবেদা বেগম জানান একটি পারিবারিক বিষয়কে কেন্দ্র করে মিনুয়ারা কৌশলে তাকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। এসময় গোপনে ফোন করে মিনুয়ারার ঘনিষ্ট বলে পরিচিত কালারমারছড়া পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই রিপনকে নিয়ে আসে। পরে মিনুয়ারা তার হাত-পা বেঁধে লাঠি দিয়ে মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থান আঘাত করে। বিষয়টি মহেশখালী থানার ওসি কে অবহিত করা হয়েছে। স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ মিনুয়ারা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এভাবে অসহায় লোকজনকে কৌশলে পুলিশকেও হাত করে নানা অপকর্ম চালিয়ে আসছে। তদন্ত করলে তার বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগ প্রমাণিত হব। সে আওয়ামী লীগের ক্ষমতা দেখিয়ে অপকর্ম করে আসলেও দেখেও মুখ খোলার সাহস করে না কেউ। সহজেই সরকারি কর্মকর্তাদের বস করে অসহায় মানুষদের উল্টা ফাঁসিয়ে দেয়। অবিলম্বে পূর্ণ তদন্ত সাপেক্ষে ওই মহিলার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় লোকজন ।