ঈদের দিন স্থানীয় যুবককে হাত-পা বেঁধে হত্যা 

প্রকাশ: ২৫ মে, ২০২০ ২:০৮ : অপরাহ্ন

টেকনাফ প্রতিনিধি।

টেকনাফের হোয়াইক্যংয়ে ঊলুবনিয়া থেকে রোহিঙ্গা স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত আব্দু রশিদের হাত-পা বাঁধা মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার (২৫ মে) সকালে হোয়াইক্যং উলুবনিয়া এবং উখিয়া উপজেলার পালংখালীর মধ্যবর্তী আঞ্জুমান খালে কাঁকড়া শিকারের সময় মোস্তাফিজ নামে এক ব্যক্তি হাত-পা বাঁধা মৃতদেহ দেখতে পান। পরে পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে। নিহত যুবক রোববার ভোররাতে মৎস্য ঘেঁর থেকে অপহৃত কাটাখালী পূর্ব পাড়ার মিয়া হোছনের ছেলে আব্দুর রশিদ ওরফে সাদেক বলে জানা গেছে।

হোয়াইক্যং ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ নুর আহমদ আনোয়ারী লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রোহিঙ্গাদের হাতে অপহৃত আব্দু রশিদের হাত বাঁধা ও মাথা, নাক-মুখে আঘাতের চিহ্ন সম্বলিত মৃতদেহ পাওয়ার বিষয়টি স্থানীয় ইউপি মেম্বার নিশ্চিত করেন। পরে পুলিশ এসে পরবর্তী পদক্ষেপ নেবেন।

উল্লেখ্য, গত ২৪ মে ভোররাত আড়াইটারদিকে উপজেলার হোয়াইক্যং কাটাখালী পাহাড়ি এলাকা হতে মিনা বাজার হতে অপহৃত ইদ্রিসকে নিয়ে একদল স্বশস্ত্র রোহিঙ্গা ডাকাত নেমে আসে। ডাকাত দল হৈ ছৈ শুরু করলে মৎস্য ঘেঁরে থাকা পূর্ব ঊলুবনিয়া রাস্তার পশ্চিম পাশ হতে কাটাখালী পূর্ব পাড়ার মিয়া হোছনের ছেলে আব্দু রশিদ ওরফে সাদেক টর্চ লাইট মেরে কারা জানতে চাই? তখন ডাকাত দল ক্ষুদ্ধ হয়ে ঘেঁরে থাকা লোকজনের উপর চড়াও হলে সাথে আনা ইদ্রিস পালিয়ে যায়। তখন ডাকাত দল ক্ষুদ্ধ হয়ে আব্দুর রশিদকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।