শিরোনাম:

রামু সোনালী অতীত ফুটবল লীগ শুরু জানুয়ারিতে

প্রকাশ: ২৪ ডিসেম্বর, ২০২০ ১১:১৮ : অপরাহ্ন

রামু প্রতিনিধি
রামুতে অতীত ক্রীড়াঙ্গনের সমৃদ্ধ ইতিহাস-ঐতিহ্য রয়েছে। সমৃদ্ধ সেই ক্রীড়া ঐতিহ্যকে উপস্থাপন করে খেলার ধারাবাহিকতা রক্ষায় আজকের প্রজন্মের মাঝে প্রাণসঞ্চার করতে হবে। কিংবদন্তিতুল্য সাবেক ফুটবলারদের কৃতিত্বপূর্ণ নৈপূণ্যতার কথাও প্রজন্মের কাছে সঠিকভাবে উপস্থাপন করা জরুরি। তাঁদের স্মৃতিময় ও কৃতিত্বপূর্ণ খেলোয়াড়ী জীবন কথা থেকে আজকের প্রজন্মরা শিক্ষা নিতে পারবে। তৃণমুল পর্যায়ে খেলার আয়োজন প্রসারিত করতে পারলেই রামু সোনালী অতীত ফুটবল ক্লাবের সার্থকতা আসবে। উপজেলার ক্রীড়া ঐতিহ্য সমৃদ্ধ করতেই ‘রামু সোনালী অতীত ফুটবল লীগ’ আয়োজন করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। নতুন বছরের শুরুতে রামু উপজলোর সাবেক ফুটবলারদের অংশগ্রহনে ‘রামু সোনালী অতীত ফুটবল লীগ ২০২১’ আয়োজন করা হবে। বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) রাত ৮টায় রামু সোনালী অতীত ফুটবল ক্লাবের সাধারণ সভায় বক্তারা এ কথা বলেন। রামু খিজারী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে রামু সোনালী অতীত ফুটবল লীগ ২০২১ পরিচালনা কমিটির আহŸায়ক পলক বড়–য়া আপ্পুর সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় বক্তৃতা করেন, রামু উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান রিয়াজ উল আলম, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম, রামু ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সুবীর বড়–য়া বুলু, রামু বাঁকখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের নির্বাহী পরিচালক কিশোর বড়–য়া, রামু সোনালী অতীত ফুটবল ক্লাবের সভাপতি ছিদ্দিক আহমদ, রামু ব্রাদার্স ইউনিয়নের সভাপতি মো. নবু আলম, সাবেক ফুটবলার ডা. রবীন্দ্র শর্মা, পুলক বড়–য়া, দেবপ্রসাদ বড়–য়া টিপু, ডাকঘর কর্মকর্তা বিমল বড়–য়া, গিয়াস উদ্দিন কোং, স্বাস্থ্য পরিদর্শক দুলাল বড়–য়া, রামু চৌমুহনী বনিক সমবায় সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সজল বড়–য়া, রাজনীতিক মো. ইউনুচ রানা চৌধূরী ও মো. আবু বক্কর ছিদ্দিক প্রমুখ।
‘ক্রীড়া ঐতিহ্য জাতীয় সমৃদ্ধির পরিচায়ক’ এ শ্লে¬¬াগানে অনুষ্ঠিত সভায় রামুর প্রাক্তন ফুটবলারদের নিয়ে ‘রামু সোনালী অতীত ফুটবল লীগ-২০২১’ আয়োজনে দল গঠন ও খেলোয়াড়দের নাম ঘোষনা করা হয়। রামু সোনালী অতীত ফুটবল ক্লাবের প্রয়াত সদস্য পরিতোষ চক্রবর্তী বাবুল, কবিরাজ অজিত বড়–য়া, মমতাজুল আলম ও অলক বড়–য়ার নামে নামকরন করে চারটি দলের নাম ঘোষনা করা হয়। রামু সোনালী অতীত ফুটবল ক্লাবের সদস্যরা এ ফুটবল লীগে অংশ গ্রহন করবেন। ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে রামু সোনালী অতীত ফুটবল লীগ-২০২১ আয়োজন করা হবে। সংগঠনের প্রবীন সদস্যদের নিয়ে ‘রামু সোনালী অতীত ফুটবল লীগ ২০২১ পরিচালনা কমিটি’ গঠন করা হয়েছে। লীগ পরিচালনা কমিটির সদস্যরা কোন ফুটবল দলে অংশ নিতে পারবে না। ‘রামু সোনালী অতীত ফুটবল লীগ-২০২১ আয়োজন ও সাংগঠনিক কার্যক্রম গতিশীল করার লক্ষে ঐক্যমত পোষন করে সংগঠনের সদস্যরা। সভায় রামু সোনালী অতীত ফুটবল ক্লাবের সদস্যদের লটারীর মাধ্যমে চারটি দলে বিভক্ত করা হয়েছে।
পরিতোষ চক্রবর্তী বাবুল ফুটবল দলের খেলোয়াড়রা হলেন, বিপুল বড়–য়া আব্বু, অমিয় বড়–য়া, বিকাশ বড়–য়া, মিজবাহ উদ্দিন, বিপ্লব বড়–য়া, শফিউল আলম লালু, সবুজ বড়–য়া, আবদুর রহিম, মো. নুরুল আলম, দুলাল বড়–য়া (শ্রীকুল), মো. নুরুল্লাহ মঞ্জুরে খোদা, কাউসার উল হক, সোহাস বড়–য়া, পলাশ বড়–য়া, প্রকাশ সিকদার, ইসকান্দর মীর্জা, সুজীব বড়–য়া, মো. হোসাইন সানী, মুরাদ সুলতান, আহামদ, সংগীত বড়–য়া, বদরুল হুদা, রিয়াজ উল আলম, অধ্যক্ষ রাজু বড়–য়া, ইঞ্জিনিয়ার তরুন বড়–য়া, মো. শহীদুল্লাহ, শাশুল আলম (মেরংলোয়া)।
কবিরাজ অজিত বড়–য়া ফুটবল দলের খেলোয়াড়রা হলেন, অভি বড়–য়া নুনু, মো. রুহুল আমিন রকি, টিপু বড়–য়া, উজ্জল বড়–য়া, ফরিদুল আলম, মোর্শেদুল আলম, কাজল বড়–য়া, জীবক বড়–য়া, বিমল বড়–য়া, মো. হোসাইন, রাশেদুল ইসলাম বাবু, অরুন বড়–য়া, সুকুমার বড়–য়া, অসিত পাল, তরুপ বড়–য়া, সুরেশ বড়–য়া, দেবপ্রসাদ বড়–য়া টিপু, মো. ইউনুচ রানা চৌধূরী, লিটন বড়–য়া, ডেবিট বড়–য়া, গিয়াস উদ্দিন, দর্পণ বড়ুয়া, সমর বড়–য়া, আবছার কামাল, তরুন বড়–য়া, ক্ষেমেশ বড়–য়া, আকতার কামাল।
মমতাজুল আলম ফুটবল দলের খেলোয়াড়রা হলেন, কাকন বড়–য়া, সুকুমার বড়–য়া বুলু, রিটু বড়–য়া, প্রতীতি বড়–য়া, খালেদ শহীদ, আবুল মনসুর, আপন বড়–য়া, ছিদ্দিক আহমদ, অমিত বড়–য়া, প্রবাল বড়–য়া, শেখ ইসহাক পাখি, চঞ্চল বড়–য়া, ইলক বড়–য়া, তুহিন বড়–য়া শানু, নুরুল কবির হেলাল, সুশান্ত পাল বাচ্চু, নুরুল হক চৌধুরী, মোর্শেদুল আলম, চম্পক বড়–য়া, নীলোৎপল বড়–য়া, ডা. রবীন্দ্র শর্মা, আবদুল হক, অনুপ বড়–য়া, রতন মল্লিক, টিটু বড়–য়া (ফ্রান্স), ছালেহ আহমদ।
অলক বড়–য়া ফুটবল দলের খেলোয়াড়রা হলেন, রাজু বড়–য়া, বিজন বড়–য়া, রূপায়ন বড়–য়া, টিটু বড়–য়া, ওমর ফারুক মাসুম, সজল বড়–য়া, সবুজ বড়–য়া (ঢাকা), এইচ বি পান্থ, পুলক বড়–য়া, দুলাল বড়–য়া, পদ্ম বড়–য়া, জিটু বড়–য়া, রূপন বড়–য়া, তাজল বড়–য়া, কিশোর বড়–য়া, শিপন বড়–য়া, ব্যুমকেশ বড়–য়া, ফরিদুল আলম চেয়ারম্যান, বাবুল বড়–য়া, সুপন বড়–য়া শিপন, সুলক বড়–য়া, শাহ আলম, পিপলু বড়–য়া, প্রবাল বড়–য়া নিশান, চন্দন দাশ, শামশুল আলম, সুবীর বড়–য়া বুলু।
পলক বড়–য়া আপ্পুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় আলোচনায় আরও অংশ নেন, নীলোৎপল বড়–য়া, শামশুল আলম, অনুপ বড়–য়া, তরুপ বড়–য়া, পুলক বড়–য়া, মোহাম্মদ হোসাইন সানি, তুহিন বড়–য়া শানু, খালেদ শহীদ, সুজীব বড়–য়া, অসিত পাল, বিদ্যুৎ বড়–য়া, সংগীত বড়–য়া, রিটু বড়–য়া, রূপায়ন বড়–য়া, মো. ইসকান্দর মীর্জা, প্রতীতি বড়–য়া, ইলক বড়–য়া, কাউছার উল হক, পলাশ বড়–য়া, সুলক বড়–য়া, অরুন বড়–য়া, সুপন বড়–য়া শিপন, বিকাশ বড়–য়া, বিপুল বড়–য়া আব্বু, চম্পক বড়–য়া, মো. আবদুর রহিম, মোর্শেদুর রহমান, রাশেদুল ইসলাম বাবু, শফিউল আলম লালু, অভি বড়–য়া নুনু, ডেভিট বড়–য়া, ফরিদুল আলম, মোহাম্মদ হোসাইন, উজ্জ্বল বড়–য়া, আহাম্মদ, টিপু বড়–য়া, প্রবাল বড়–য়া, সুহাস বড়–য়া, শেখ ইসহাক পাখি, দুলাল বড়–য়া, সুরেশ বড়–য়া, আবুল মনসুর, ওমর ফারুক মাসুম প্রমুখ।