শিরোনাম:

ঈদগাঁওতে কাব স্কাউট বেসিক কোর্সের উদ্বোধন করলেন সদর ইউএনও সুইটি

প্রকাশ: ১৭ জানুয়ারী, ২০২১ ১১:৪০ : অপরাহ্ন

মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও, কক্সবাজার

কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুরাইয়া আক্তার সুইটি বলেছেন, নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করতে হলে বিশেষ কিছু গুণাবলীর দরকার হয়। এর অন্যতম হচ্ছে স্কাউটিং। যা মানুষকে সময়ানুগ ও নিয়মানুবর্তী হতে শেখায়। সদর উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা আরো বলেন,শিক্ষকরা হচ্ছেন শিক্ষার্থীদের অনুকরণীয় ব্যক্তিত্ব। তারা পিতা- মাতার চাইতেও শিক্ষার্থীদের বেশি প্রভাবিত করতে পারেন। তিনি সকলকে স্বেচ্ছাসেবী হয়ে বন্ধুত্বসুলভ ও সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক তৈরি করতে আহ্বান জানান। তিনি আজ বিকেলে কাব স্কাউট ইউনিট লিডার বেসিক কোর্সের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন কালে একথা বলেন। বাংলাদেশ স্কাউটস কক্সবাজার সদর উপজেলা শাখার ব্যবস্থাপনায় ঈদগাহ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে আজ ৫ দিনব্যাপী এ কোর্স শুরু হয়েছে। প্রাথমিক বিদ্যালয় সমূহে কাব স্কাউটিং সম্প্রসারণ (চতুর্থ পর্যায়) প্রকল্পের অর্থায়নে আয়োজিত এ কোর্সে বিভিন্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪০ শিক্ষক অংশগ্রহণ করছেন। বাংলাদেশ স্কাউটস চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিচালনায় ও কক্সবাজার জেলা স্কাউটস এর সহায়তায় শুরু হওয়া এ কোর্সের উদ্বোধনীতে বক্তব্য দেন কোর্সের প্রশিক্ষক ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আসাদুজ্জামান চৌধুরী, ভেন্যু বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও কক্সবাজার সদর উপজেলা স্কাউটসের সহ-সভাপতি খুরশীদুল জান্নাত এবং আজগর হোসাইন। শুরুতে স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলাদেশ স্কাউটস কক্সবাজার সদর উপজেলা শাখার কমিশনার ও কাব লিডার মোঃ জসিম উদ্দিন। সমন্বয়ক ছিলেন কক্সবাজার সদর উপজেলা স্কাউটস এর সমন্বয়ক আব্দুল মজিদ খান। প্রশিক্ষকদের মধ্যে ছিলেন কাজীর দেউড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক রুমা বড়ুয়া,পানখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহমুদুর রহমান, দক্ষিণ কাঞ্চনা গুরগুরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রঞ্জন কুমার ধর, দারিয়ার দিঘী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোজাফফর আহমদ, জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া মহিলা ফাজিল মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষক শাহানা আফরোজ, নোয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এর সহকারি শিক্ষক বিকাশ কান্তি দাস, নোয়াপাড়া মুসলিম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রতন শর্মা, নবরত্ন আইডিয়াল কেজি স্কুলের সহকারি শিক্ষক মোঃ ইসলাম প্রমুখ। প্রথম দিনের কর্মসূচিতে ছিল ষষ্ঠক গঠন ও নামকরণ, পতাকা উত্তোলন, আইস ব্রেকার্স, প্রাক মূল্যায়ন, তাবু কলা, স্কাউটিং দক্ষতা, স্কাউট আন্দোলনের মৌলিক বিষয়সমূহ, স্কাউটিং এ খেলাধুলা ও গানের এর ব্যবহার। দ্বিতীয় দিনের কর্মসূচিতে রয়েছে শরীরচর্চা ও স্বাস্থ্য, পতাকা উত্তোলন, কাব স্কাউট, প্রশিক্ষণ ও প্রোগ্রাম পরিকল্পনা, বনকলা, স্কাউট ওন, বাতি নেভানো। থিম অফ দা ডে ছিল স্বাস্থ্যবিধি মানব, সুস্থ্য জীবন গড়ব। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্কাউট কমিশনার ও এএল টি আনোয়ারুল আজিম চৌধুরী, খুরুশকুল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাজিম উদ্দিন, ঈদগাঁও ফাজিল ডিগ্রী মাদ্রাসার শরীরচর্চা বিষয়ক শিক্ষক আব্দুস সালাম। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ও অন্য বক্তারা বলেন, স্কাউটিং শিক্ষার্থীদের নিজ, সমাজ, বিদ্যালয় ও রাষ্ট্রের জন্য কল্যাণকর। তারা অংশগ্রহণকারীদের আন্তরিকতা ও মনোযোগের সাথে হাতে কলমে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দীক্ষা নিয়ে বের হওয়ার পরামর্শ দেন। স্কাউটিংকে সমাজের সর্বত্র ছড়িয়ে দিতে প্রশিক্ষণার্থীরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেন বলে উল্লেখ করেন বক্তারা। তাদের মতে স্কাউট ব্যক্তিত্বরাই সুন্দর ও সমৃদ্ধ দেশ গড়তে এবং নিয়মানুবর্তী হতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন