শিরোনাম:

ব্র্যাকের “হেড অফ প্রোগ্রাম” এর বিরুদ্ধে ফেসবুকে এক নারীর অভিযোগ

প্রকাশ: ১৮ জানুয়ারী, ২০২১ ১১:০০ : অপরাহ্ন

ফেসবুক, পত্রিকা নানান জায়গায় গলার স্বর উঁচু করে কথা বলা, বুক ফুলিয়ে, মাথা উঁচু করে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত প্রগতিশীল নারীবাদী উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের আমরা কি ভীষণ ভালো মানুষ বলেই না জানি, তাইনা??..

কি ভয়ানক ভালো মানুষের মুখোশ পরে থাকেন..
হাজার হাজার ফলোয়ার..
ব্লগেও লেখেন..
পত্রিকার কথা তো বাদই দিলাম..
শত শত আর্টিকেল..

নিস্টার সাথে বছরের পর বছর একই প্রতিষ্ঠানে কাজ করে যাচ্ছেন..

ধর্ষণ নিয়ে প্রতি সপ্তাহে একটা না একটা লেখা থাকবেই..
অথচ অফিসে বসেই ভিডিও কলে কথা বলতে বলতে করে বসেন হস্তমৈথুন..

শারীরিকভাবে ও মানসিকভাবে স্ত্রী তাকে খুশি করতে পারছেন না বলে নানানভাবে ভালোবাসার প্রলোভনে মেয়েদের অনুভূতিকে নিয়ে খেলছেন..
এরকম একজন মানুষের ক্ষেত্রে নিষ্ঠা শব্দটা নিশ্চয়ই যায়না..
এরা ফেসবুক পোস্টে লিখে থাকেন, এরা সারাজীবন নাকি লোভীর মত ভালোবাসা খুঁজে যাবেন..

প্রশ্নঃ লোভীর মত ভালোবাসা নাকি লোভীর মত মেয়ে খুঁজে যাবেন..??..

এরকম একজন ব্যক্তিকে দেশের খুব উঁচু পর্যায়ের প্রতিষ্ঠান ‘ব্র্যাক’ কক্সবাজারে ‘হিউম্যানেটেরিয়ান ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট প্রোগ্রামে’ খুব উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ‘হেড অফ প্রোগ্রাম’ হিসেবে স্থান দিয়েছে..

প্রশ্নঃ ওই প্রতিষ্ঠান জানে তো, আড়ালে তার প্রতিষ্ঠানের মেয়েরা সুরক্ষিত কিনা??..

প্রশ্নঃ ওই প্রতিষ্ঠান জানে তো, উনি মেয়েদের মানসিক অবস্থার সাথে সাথে শারীরিক অবস্থারও ভয়ানক ক্ষতি করে ফেলবেন কিনা??..

আমরা কয়েকজন খুব শীঘ্রই এই ধরণের বিষয় নিয়ে একদম সরাসরি আলোচনায় আসবো..
এই আলোচনায় প্রত্যেকটি বিষয় খুব সুক্ষভাবে আমরা তুলে ধরার চেষ্টা করবো..
আশা করি, পাশে থাকবেন..