যমজ ভাইয়ের সঙ্গে যমজ বোনের বিয়ে

প্রকাশ: ২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১১:৪২ : অপরাহ্ণ

কান্ট্রি ডেস্ক।

বরিশাল নগরীর নাজিরমহল্লা এলাকায় সোমবার মধ্য রাতে যমজ বোনের সঙ্গে পিরোজপুরের যমজ ভাইয়ের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। এভাবে জোড়া মিলিয়ে সনাতন রীতিতে একইসময়ে তাদের বিয়ে হওয়ায় বিষয়টি শহরজুড়ে আলোচনার জন্ম দিয়েছে। সবাই তাদের জন্য শুভ কামনা করছেন, অনেকে খবর শুনে রাতে তাদের বিয়ে দেখতেও আসেন। একই দিনে, একই লগ্নে বিয়ের পর সনাতন ধর্ম মতে মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) সকালে তাদের বাসি বিয়ে সম্পন্ন হয়। বিকেলে যমজ কন্যাদের নিয়ে যাওয়া হয় বরদের বাড়িতে।

নাজিরমহল্লার বাসিন্দা স্বপন কর্মকারের যমজ কন্যা সোনালী কর্মকার সোনা ও রুপালী কর্মকার রুপা। তারা দুজনই বরিশাল সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী। দুই বর হচ্ছেন পিরোজপুরের স্বরূপকাঠি থানার ইন্দেরহাট এলাকার প্রয়াত নিখিল লাল কর্মকারের ছেলে সজল কর্মকার ও কাজল কর্মকার। তারা দুই জনই স্বর্ণ ব্যবসায়ী।

কনে পরিবার থেকে জানা গেছে, একমাস আগে সামাজিকভাবে দুই পরিবারের মধ্যে বিয়ে নিয়ে আলোচনা শেষে দিন তারিখ নির্ধারিত হয়। সে মতে সোমবার রাতে ছিল বিয়ের দিনক্ষণ। যা সুষ্ঠুভাবে এবং নানা আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে শেষ হয়েছে।

যমজ দুই বোনের সঙ্গে যমজ দুই ভাইয়ের বিয়ের খবর শুনে বিয়ের অনুষ্ঠান উপভোগ করতে সোমবার রাতে কনের বাবার বাড়িতে উৎসুক এলাকাবাসীর ভিড় জমেছিল। আমন্ত্রণ না পেলেও অনেকেই আসেন বিয়ে বাড়িতে যমজদের দেখতে। তারাও আপ্যায়িত হন।
এই দুই নবদম্পতি যেন সুখী হয়, সে জন্য সকলের কাছে প্রার্থনা ও আর্শীবাদ চেয়েছেন বর ও কনের স্বজনরা।

বিয়ে হয় বরিশালে পাত্রীর বাড়িতে। অনুষ্ঠানে আসা অতিথিদের জন্য মধুর বিভ্রম তৈরি হয় মঞ্চে প্রায় একই রকম চেহারার দুই বউ আর একই রকম দুই বরকে দেখে। তবে অবাক হলেও উচ্ছ্বসিত হন সবাই। যমজ হওয়ায় কে ছোট আর কে বড় এই কৌতূহল ছিল সবার মাঝে। অবশ্য, নতুন বিবাহিতরা জানালেন, তারা ঠিকই চেনেন একে অপরকে।